রমজান মাসের ক্যালেন্ডার 2022। মাহে রমজান ২০২২ সময়সূচী

রমজান মাসের ক্যালেন্ডার 2022। মাহে রমজান ২০২২ সময়সূচী

মাহে রমজান ২০২২ সময়সূচী। প্রিয় মুসলিম ভাই ও বোনেরা আপনাদের সকলকেই জানাই রমজানের অগ্রিম শুভেচ্ছা। মুসলমানদের জন্য সবচেয়ে খুশির মাস হচ্ছে পবিত্র মাহে রমজান মাস। যে মাস কে ঘিরে আল্লাহ তায়ালা প্রত্যেক মুসলমানদের উপর রোজাকে ফরজ করেছেন। ইসলামের মধ্যে পাঁচটি খুঁটির মধ্যে অন্যতম হচ্ছে পবিত্র মাহে রমজান। তাই পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা জানিয়ে আপনাদের সামনে রমজান মাসের সময়সূচি তুলে ধরেছি। আমাদের এই পেজ থেকে রমজান মাসের ক্যালেন্ডার এবং রমজান মাসের সময়সূচি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

রমজান মাস পবিত্র মাস ও বরকত পূর্ণ মাস। রমজান মাস এতে রয়েছে মানুষের দিশারী এবং সৎপথের স্পষ্ট নিদর্শন ও সত্যাসত্যের পার্থক্যকারী রূপে কোরআন অবতীর্ণ করা হয়েছে। এই মাসের মধ্যে এমন একটি রাত্র রয়েছে যার ফজিলত অনেক।

দেখতে দেখতে বছর শেষ হয়ে পবিত্র মাহে রমজান এসে উপস্থিত হলো। মুসলমানদের জন্য আনন্দের উৎস। তাই রমজান মাস ঘিরে আমরা অনেকেই পবিত্র মাহে রমজানের সময়সূচী জানতে চাই। তাদের জন্য নিম্নে রমজান মাসের সময়সূচী সম্পর্কে বিস্তারিত দেয়া হলো।

রমজান মাসের সময়সূচি ২০২২

আমরা মুসলিম হিসেবে প্রত্যেক রোজাদার ব্যক্তির পবিত্র মাহে রমজানের সময়সূচী সম্পর্কে জানা খুবই প্রয়োজন। রোজা রাখার পাশাপাশি পাঁচ অক্ত নামাজ সময়মতো আদায় করা আমাদের কর্তব্য। তাই আপনারা যারা পবিত্র মাহে রমজান মাসের সময়সূচি নিয়ে ইন্টারনেটে সার্চ করতেছেন তারা আমাদের এই সাইট থেকে রমজানের সময়সূচী দেখে নিতে পারেন। এখান থেকে আপনি রমজান মাসের পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি জেনে নিতে পারেন।

২০২২ সালের রমজান মাসের ক্যালেন্ডার

প্রতি বৎসর মাহে রমজান মাসের ক্যালেন্ডার তৈরি করা হয়। বাংলাদেশ ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রতিবছর রমজান মাসের ক্যালেন্ডার প্রকাশ করে থাকেন। রমজানের ক্যালেন্ডার প্রত্যেক মুসলিম রোজাদার ব্যক্তির জন্যে রাখা খুবই প্রয়োজন। এই ক্যালেন্ডার এর মধ্যে রমজান থেকে শুরু করে নামাজের সেহেরির ও ইফতারের সময়সূচী বিদ্যমান থাকে। মুসলমানদের জন্য জানা খুবই দরকার। ইচ্ছে করলে আপনি পবিত্র মাহে রমজানের ক্যালেন্ডার ডাউনলোড করে নিতে পারেন। নিম্নে রমজানের ক্যালেন্ডার দেয়া হলো। 

ramadon calendar

উপরোক্ত ক্যালেন্ডার টি ডাউনলোড করে নিতে পারেন। ক্যালেন্ডারের সময়সূচি দেখে নামাজ রোজা সেহরি ও ইফতারি সময় মত আদায় করতে পারবেন।

২০২২ সালের রোজার ঈদ কবে

ঈদ মানে আনন্দ ঈদ মানে খুশি। তাই ঈদ কবে হবে এ বিষয়ে জানতে মুসলমানদের মনে আনন্দের জোয়ার বয়ে যায়। হিজরি ১৪৪৩ সনের ক্যালেন্ডার অনুযায়ী রমজান মাস শুরু হবে এপ্রিল মাসের ৩ তারিখে। শাবান মাস ২৯ দিনে হওয়ায় পবিত্র রমজান মাস ৩০ দিনে ও সম্ভাবনা আছে। সে ক্ষেত্রে ঈদুল ফিতর শুরু হওয়ার সম্ভাবনা ৩ মে ২০২২। তবে চাঁদ দেখার উপর রোজার ঈদ কবে হবে তার ওপর নির্ভরশীল।

বাংলাদেশে রোজা কবে থেকে শুরু ২০২২

ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর তথ্য মতে ২০২২ সালে রোজার প্রথম তারিখ হচ্ছে ৩ এপ্রিল ২০২২। আর বাংলা মাসের অনুযায়ী ২০ শে চৈত্র ১৪২৮। অর্থাৎ ১৪২৮ বঙ্গাব্দের ২০ শে চৈত্র প্রথম রোজা হবে।

রোজা রাখার নিয়ত

আমরা মুসলিম হিসেবে আমাদের রোজার নিয়ত জানা অত্যন্ত জরুরী। নিম্নে রোজার নিয়ত দেয়া হলো

বাংলা উচ্চারণঃ নাওয়াইতুয়ান আসুমা গাদাম মিনশাহরি রমাজানাল মুবারাকি ফারদাল্লাকা, ইয়া আল্লাহু ফাতাকাব্বাল মিন্নি ইন্নিকা আনতাস সামিউল আলিম। 

বাংলা অর্থঃ হে আল্লাহ! আমি আগামীকাল তোমার পক্ষ থেকে পবিত্র রমজানের নির্ধারিত ফরজ রোজা রাখার ইচ্ছা পোষন করলাম। অতএব তুমি আমার পক্ষ থেকে( আমার রোজা তথা পানাহার থেকে বিরত থাকাকে) কবুল করো, নিশ্চয়ই তুমি সর্ব সর্ব জ্ঞানী ও প্রজ্ঞাময়।

ইফতার করার দোয়া

বাংলা উচ্চারণঃ আল্লাহুম্মা লাকা সুমতু, ওয়া আ’লা রিযক্কিকা আফতারতু। 

অর্থঃ হে আল্লাহ! আমি তোমার জন্য রোজা রেখেছি এবং তোমার দেওয়া রিযিক দিয়ে ইফতার করতেছি।

রোজা ভঙ্গের কারণ কয়টি ও কি কি

রোজা ভঙ্গের কয়েকটি কারণ নিম্নে উল্লেখ করা হলো

> স্ত্রীর সাথে সহবাস বা যৌন কাজে লিপ্ত হওয়া।

> ইচ্ছাকৃতভাবে কোন কিছু পানাহার করা।

> পবিত্র কুরআনের বাণী

আল্লাহ তাআলা পবিত্র কোরআনে স্পষ্ট উল্লেখ করেছেন যে তোমরা রমজানে রোজা রাখা অবস্থায় দিনের বেলা স্ত্রী সহবাস থেকে বিরত থাকো এবং সকল প্রকার পানাহার থেকে নিজেকে বিরত রাখুন।  (সূরা বাকারা আয়াত নাম্বার ১৮৭)

 ঈদুল ফিতর ২০২২ সালের কত তারিখ?

মূলত রমজান মাস চাঁদ দেখার উপর নির্ভরশীল তাই পবিত্র ঈদুল ফিতর চাঁদ দেখার উপর ভিত্তি করে শুরু হবে। তবে ধারণা অনুযায়ী বলা যেতে পারে ৩ মে ২০২২ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বিশেষ করে সৌদি আরবের তুলনায় আমাদের বাংলাদেশ ১ দিন পরে ঈদুল ফিতর আয়োজিত হয়।

২০২২ সালের কোরবানির ঈদ কত তারিখে হবে?

২০২২ সালের ক্যালেন্ডার অনুযায়ী পবিত্র ঈদুল আযহা কোরবানির ঈদ ৯ জুলাই সৌদি আরব এবং১০ জুলাই বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হবে।

শেষ কথাঃ 

আমরা মুসলিম হিসেবে আমাদের প্রত্যেকেরই পবিত্র মাহে রমজানের সময়সূচী থেকে শুরু করে। পবিত্র মাহে রমজানের দোয়া জানা আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমরা সকলেই চেষ্টা করব পবিত্র মাহে রমজানের দোয়া গুলি মুখস্ত করার।

tech-007

Leave a Reply

Your email address will not be published.