২০২৩ ঈদ নিয়ে উক্তি, ছড়া, রচনা, ছন্দ, অনুচ্ছেদ, স্ট্যাটাস ও কবিতা

২০২৩ ঈদ নিয়ে উক্তি, ছড়া, রচনা, ছন্দ, অনুচ্ছেদ, স্ট্যাটাস ও কবিতা

২০২৩ ঈদ নিয়ে উক্তি, ছড়া, রচনা, ছন্দ, অনুচ্ছেদ, স্ট্যাটাস ও কবিতা। আমাদের পেজ থেকে শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করতে যাচ্ছি আজকের নতুন পোস্ট। ২০২৩ ঈদ নিয়ে উক্তি, ছড়া, রচনা, ছন্দ, অনুচ্ছেদ, স্ট্যাটাস ও কবিতা সার্চ করতেছেন। কিন্তু এখনো খুঁজে পাননি তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট।

আমাদের এই পেজ থেকে ২০২৩ ঈদ নিয়ে উক্তি, ছড়া, রচনা, ছন্দ, অনুচ্ছেদ, স্ট্যাটাস ও কবিতা পোস্টটি দেখতে পারেন, আশা করি আপনাদের কাছে অনেক ভালো লাগবে। আরো উক্তি পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

ঈদ নিয়ে ছন্দ

প্রিয় সুধী আজকে আপনাদের সামনে পবিত্র ঈদ নিয়ে ছন্দ আমাদের এই পেজে উত্তমরূপে সাজিয়ে আপনাদের সামনে উপস্থাপন করা হলো। নিম্নে  ছন্দ গুলো দেখতে পারেনঃ

ঈদ মানে খুসি, ঈদ মানে আনন্দ,
ঈদ আসে ভুলিয়ে দিতে সকল বিভেদ দ্বন্দ্ব,
ঈদ মানে ভুলে যাওয়া যতো দুঃখ ভয়,
ঈদের মত তোমার জীবন টা হোক দীপ্তিময় ।
*** ঈদ মোবারাক***

আলাহর আশীর্বাদে যেন

তোমার জীবনে খুশি সবসময় থাকে,

এবং সাফল্যের সব রাস্তা

যেন তোমার জন্য খুলে যায় সারাজীবনের জন্য

***ঈদ মোবারক ***

ঈদ নিয়ে অনুচ্ছেদ

“ছোটো বড়ো ধনী গরীবের ভেদাভেদ

থাকেনা ঈদের দিনে,

কেউ নয় রাজা কেউ নয় ভিখারী

ভালোবাসা জাগে সকলের প্রাণে।

নামাজের শেষে সব মিলে মিশে

খুশির জোরে বিশ্ব ভুবন যায় ভেসে”

*** ঈদ মোবারক ***

মনের মিনারে আজ শোনাযায়

আনন্দের আহ্বান

ঈদুল ফিতর এসেছে আজ

*** ঈদ মোবারক ***

বাঁকা চাঁদের হাসিতে দাওয়াত দিলাম আসিতে,
আসবে কিনা বাড়িতে ? খেতে দেবো হাড়িতে ।
আসতে যদি নাও পারো,
ঈদের দাওয়াত গ্রহন করো
*** ঈদ মোবারাক ***

ঈদ নিয়ে স্ট্যাটাস

আমরা অনেকেই আছি ঈদকে সামনে রেখে ঈদ নিয়ে স্ট্যাটাস ফেসবুক অথবা মেসেঞ্জারে প্রচার করতে পছন্দ করি তাই আজকে আপনাদের সামনে ঈদ নিয়ে স্ট্যাটাস দেয়া হলো এখান থেকে আপনারা সংগ্রহ করতে পারেন।

ঈদ মানে হাসি, ঈদ মানে আশা। ঈদ মানে তোমার প্রতি আমার ভালোবাসা।

ঈদ মানে দুর আকাশে মিষ্টি চাঁদের হাসি। ঈদ মানে সুখ সাগরে সবাই মিলে ভাসি।
ঈদ মোবারক ।

রঙ লেগেছে মনে। মধুর এই খনে। তোমায় আমি রাঙ্গিয়ে দিবো ঈদের এই দিনে। ঈদ মোবারাক

রিমঝিম এই বৃষ্টিতে, ঈদ কাটাবো সৃষ্টিতে. খুশির হাওয়া লাগলো মনে, নাচবে খুকি ক্ষণে ক্ষণে সাজবে সবায় নতুন পোশাক, ঈদ যেন সারা জীবন রয়ে যাক । ঈদ মোবারক

হাঁসের ডিম মুরগির ডিম দেখা হবে ঈদের দিন” ঈদ মানে আনন্দ ‘ঈদ মানে খুশি’ ঈদের দাওয়াত না দিলে মারবো একটা ঘুষি!

ঈদ নিয়ে উক্তি

প্রিয় সুধী আজকে আপনাদের সামনে পবিত্র ঈদ নিয়ে উক্তি উপস্থাপন করা হলো আপনারা আমাদের এই পেজ থেকে উক্তি গুলো দেখে নিতে পারেন।

***ঈদ মানে হাসি, ঈদ মানে আশা।
ঈদ মানে তোমার প্রতি আমার ভালোবাসা।
ঈদ মানে দুর আকাশে মিষ্টি চাঁদের হাসি।
ঈদ মানে সুখ সাগরে সবাই মিলে ভাসি।
ঈদ মোবারক***

***সারা দেশে চলছে ঈদের উৎসব ।
ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি।
ঈদ মানে হাজার কষ্টের মাঝেও
একটুখানি হাসি। ঈদ মোবারক।***

***আমার বাড়ি আইসো সখী নতুন সাজে সেজে,
ঈদের পোশাক দিব তোমায় বইসো আমার পাশে।
পোলাও কোরমার সাথে দিব 7আপ খেতে।
ঈদের দিন করবো মাস্তী দুজন মোরা মিলে।
ঈদ মোবারক।***

***রিমঝিম এই বৃষ্টিতে, ঈদ কাটাবো সৃষ্টিতে.
খুশির হাওয়া লাগলো মনে, নাচবে খুকি ক্ষণে ক্ষণে
সাজবে সবাই নতুন পোশাক,
ঈদ যেন সারা জীবন রয়ে যাক
“ঈদ মোবারক”***

***মেঘলা আকাশ মেঘলা দিন
ঈদের বাকি কিছু দিন
সবার মুখে ফুটবে হাসি
ফুল ফুটবে রাশি রাশি
নতুন সূর্য নতুন দিনে,
ঈদ কাটুক হাসি মনে***

***রঙ লেগেছে মনে। মধুর এই খনে।
তোমায় আমি রাঙ্গিয়ে দিবো ঈদের এই দিনে।
“ঈদ মোবারাক***

ঈদ নিয়ে ছড়া

নিম্নে ঈদ নিয়ে ছড়া দেয়া হলো আপনারা এখান থেকে দেখে নিতে পারেনঃ

ঈদের ছড়া
– শ্রাবণ শুভ্র

ঈদ এসেছে,ঈদ এসেছে
স্বপ্ন নিয়ে আজ,
সুখের পাহাড় বাঁধবো এবার
রঙিন ফুলের তাজ।

খোকা-খুকুর মাঝে যেন
সিন্ধি আমেজ মেলা,
মিষ্টি মধুর হাসি যেন
গোধূলি মাখা বেলা।

রুপ কথার রঙ তুলিতে
দৃশ্যপটে গাঁথা ,
সুর মিলিয়ে বাজায় বাঁশি
এক সুরেতে বাঁধা ।

বাংলা আমার মায়ের ভাষা
শহীদ ছেলের দান,
এই দিনে দ্বন্দ্ব ভূলে
মুগ্ধ সবার প্রাণ ।

ঈদ এসেছে,ঈদ এসেছে
স্বপ্ন নিয়ে আজ
নিত্য বালা কাপড় পড়ে,
পল্লী বধূ সাজ।

ঈদ নিয়ে কবিতা

ঈদ নিয়ে কবিতা আমাদের পেজে সাজানো হলো নিম্নে দেখুনঃ

ঈদ মোবারক
– বেঞ্জিন বেঞ্জয়েট

আকাশে বাতাসে ছুঁয়ে যাক মোদের খুশীর মোড়ক ,
সবাইকে জানাই ঈদের শুভেচ্ছা ” ঈদ মোবারক ” ।
বিদেশে যারা আছি মোরা, আসেনা তো ঈদের খুশী ,
তবু অভিনয়ে শুভেচ্ছা বিলিয়ে দেই অনুরাগে ভাসি ।
প্রাণের হিল্লোল হৃদয়ের কল্লোল নিস্তেজ হয়ে ছুটে ,
পশ্চিম আকাশে ঈদ নামে যবে বেদনার চাঁদ ওঠে ।

প্রাণের বন্ধনে চাপিয়া ক্রন্দন বিলিয়ে দেই আয়েশ ,
নয়ন নীরে একাকী মোরা রান্না করি সেমাই পায়েস ।
দুধের স্বাদ ঘোলে মিটিয়ে সুখ খুঁজি তবু পবনেতে ,
জীবনের গ্লানি দূর করিতে টেনে যাই ঘানী ভুবনেতে ।
আয়ু’টার দৈর্ঘ্য কেউ জানিনা তবু চলি অসীমে টানি ,
বিসর্জন দিয়ে সুখ শান্তি বাঁচিয়া রাখি জীবন খানি ।
রক্তের টানে প্রিয়জন ছলে তবু থাকি হাসি মুখে ,
যত হেসে যাই স্বস্তি নাহি পাই সুখ আসে না বুকে ।

তবু প্রিয়জনের মুখে হাসি ফুটাতে করে যাই অভিনয় ,
খুশীর ঈদ যেন উভয়ের মাঝে সমান ভাগাভাগি হয় ।
তোমাদের খুশী তো আমার খুশী খুশীতেই মাখামাখি ,
দেখেনা তারা আড়ালে থাকে নীরে ভিজে দু’টি আঁখি ।
সেমাই পায়েস শিরনি পোলাও লাগে যেন তোবারক ,
সবার মুখে হাসি ফুটাতে বলে যাই শুধু ঈদ মোবারক ।

ঈদ নিয়ে রচনা

রচনা : ঈদ উৎসব
সূচনা :  ঈদ মানে আনন্দ ঈদ মানে খুশি। ঈদ মুসলমানদের জন্য একটি শ্রেষ্ঠ ধর্মীয় উৎসব। ঈদ অর্থ আনন্দ বা খুশী। এ ঈদ উৎসব মুসলমানদের প্রতিটি গৃহে পালিত হয়। ঈদ বছরে দু’বার আসে। প্রতিটি বছর সাওয়াল মাসের ১লা তারিখ এবং জিলহজ্জ্ব মাসের ১০ তারিখে ঈদ উৎসব পালিত হয়। প্রথমে যে উৎসব পালিত হয় তাকে ঈদুল ফিতর এবং পরে যে উৎসব পালিত হয় তাকে ঈদুল আয্হা বলে।

ঈদুল আয্হা : জিলহজ্জ্ব মাসের ১০ তারিখে যে ঈদ পালিত হয় তাকে ঈদুল আয্হা বলে। হযরত ইব্রাহীম (আঃ) ছিলেন আল্লাহর নবী। তিনি আল্লাহর হুকুমে তাঁর একমাত্র পুত্র হযরত ইসমাইল (আঃ)-কে কোরবানি করার আদেশ পালন করার জন্য ইব্রাহীম (আঃ) তাঁর পুত্রকে মাটিতে শোয়ালেন। কিন্তু তাঁর গলায় ছুরি বিদ্ধ হলো না। আল্লাহ তাঁর বন্ধুর আন্তরিকতা ও ভালবাসায় মুগ্ধ হয়ে হযরত ইসমাইল (আঃ)-এর পরিবর্তে একটি পশু কোরবানি করতে আদেশ করলেন এবং তা কবুল করলেন। প্রতি বছর জিলহজ্জ্ব মাসের ১০ তারিখে এ উৎসব পালন করা হয়। এ দিনে ধনী মুসলমানগণ গরু, ছাগল, ভেড়া, উট প্রভৃতি পশু কোরবানি করেন। এ দিনে আনন্দে সবাই মেতে ওঠে।

ঈদুল ফিতর : পবিত্র মাহে রমজান মাস অপেক্ষা করে ঈদুল ফিতরের ঈদ শুরু হয়। এ রমজান মাসটি মুসলমানদের জন্য অতি পবিত্র। এ মাসের দিবাভাগে পানাহার হতে বিরত থাকার জন্য মুসলমানগণ আল্লাহর আইন অনুসারে এক মাস রোজাব্রত পালন করে থাকেন। দীর্ঘ একমাস রোজা রাখার আনন্দে ঈদুল ফিতর পালন করা হয়। এ দিনে প্রতিটি মুসলিম পরিবার আনন্দে মেতে ওঠে। রমযান শেষ হবার ৩/৪ দিন পূর্ব হতেই ঈদের দিন সকালে প্রত্যেক গৃহে সেমাই, ফিরনী, নাস্তা, পোলাও ইত্যাদি খাবার তৈরি করা হয়। সবাই মিলে এক ঘর হতে অন্য ঘরে আনন্দের সাথে খাওয়া-দাওয়া করে। এ ঈদের দিন সকালে ধনীরা গরীব লোকদের মুক্ত হস্তে দান করে। এ দানকে ফেতরা বলা হয়। এ দিনে মুসলমানগণ সকালে গোসল করে নতুন কাপড় পরে মিষ্টান্ন খেয়ে ঈদগাহে গমন করে। তথায় সকলে মিলে ঈদের নামাজ পড়ে। একজন অপরজনের সঙ্গে কোলাকুলি করে আনন্দের সাথে ঘরে ফিরে।

ঈদ উৎসব : ঈদ মূলত আনন্দের প্রতীক। ঈদের দিন মুসলমানগণ ময়দানে জমায়েত হয়ে নামাজ আদায় করেন। ধনী-দরিদ্র নির্বিশেষে সবাই এতে শরীক হয়। নামাজ শেষে খুতবা পাঠ ও মুনাজাত করা হয়। এরপর একে অপরের সাথে আলিঙ্গনাবদ্ধ হয়ে কুশল বিনিময় করেন।
ঈদের দিন ধনী-বির্ধন সবাই কিছু না কিছু সাধ্যানুসারে বিশেষ খাবারের ব্যবস্থা করেন। গরিবদের মধ্যে ধনীরা এসব খাবারও বিতরণ করেন। অনেকে কাপড়-চোপড় বিতরণের পদক্ষেপও নেয়। আবার কোরবানীর গোস্ত, পশুর চামড়ার মূল্য ছাড়াও নানা রকম সাহায্যও করে থাকেন। বাড়ির ছেলেমেয়েরা নতুন জামা-কাপড় করে দিনটিকে বিশেষ আনন্দের সাথে উদযাপন করে।

উপসংহার : ঈদের দিন মুসলমানেরা পরস্পরের শত্রুতা ভুলে গিয়ে হাতে হাত মিলিয়ে মোছাহাফা করেন, বুকে বুক মিলিয়ে আলিঙ্গন করেন। একে অপরকে দাওয়াত করে বাড়িতে নিয়ে আপ্যায়ন করেন। এর ফলে তাদের পরস্পরের শত্রুতা ভাব দূর হয় এবং তাদের মাঝে ভ্রাতৃত্ব ভাব জেগে ওঠে। ঈদের সওয়াব বর্ষিত হোক সকলের উপর- আমরা এ কামনা করি।

শেষ কথাঃ

২০২৩ ঈদ নিয়ে উক্তি, ছড়া, রচনা, ছন্দ, অনুচ্ছেদ, স্ট্যাটাস ও কবিতা। ২০২৩ ঈদ নিয়ে উক্তি, ছড়া, রচনা, ছন্দ, অনুচ্ছেদ, স্ট্যাটাস ও কবিতা পোস্ট পড়ে ভালো লাগে তাহলে এই পোস্টটি সকলের মাঝে শেয়ার করতে পারেন। আশা করি আপনাদের সকলের কাছে ভালো লাগবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য অনেক ধন্যবাদ।

আরো পড়ুনঃ

tech-007

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *