মহিলাদের জন্য ঘরে বসে ব্যবসা করার ১০টি আইডিয়া

মহিলাদের জন্য ঘরে বসে ব্যবসা করার ১০টি আইডিয়া

মহিলাদের জন্য ঘরে বসে ব্যবসা করার ১০টি ব্যবসার আইডিয়া- আজকে আমরা কথা বলবো মেয়েদের  ঘরে বসে ব্যবসা করার কিছু আইডিয়া নিয়ে। অনেকেই আছেন যারা মেয়েদের ব্যবসার আইডিয়া তথা মহিলাদের জন্য ব্যবসা নিয়ে ইন্টারনেটে অনুসন্ধান করে থাকেন। তাদের জন্য আজকের পোস্টে মহিলাদের ব্যবসার আইডিয়া নিয়ে কিছু পোষ্ট দেওয়া হল। সবার আগে মহিলাদের ব্যবসার আইডিয়া তথা মহিলাদের জন্য ঘরে বসে ব্যবসা করার কিছু আইডিয়া  সংগ্রহ করার জন্য আজকের পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন। আশাকরি আপনাদের সবার ভালো লাগবে।

মহিলাদের জন্য ঘরে বসে ব্যবসা করার  আইডিয়া

বর্তমানে মহিলারা ছেলেদের চেয়ে কোনো অংশে পিছিয়ে নয়। তারাও এখন ঘরে বসে তাদের নিজ নিজ ইনকামের পথ গুছিয়ে নিতেছে। তারাও এখন অনেক উন্নয়নমূলক কাজে অংশগ্রহণ করতেছে।

১। ঘরে তৈরি খাবারের ব্যবসা

সাম্প্রতিক সময়ে তুমুল জনপ্রিয় একটি ব্যবসার আইডিয়া হল ,ঘরে তৈরি খাবারের ব্যবসা। আপনার  রান্নার প্রতি আইডিয়া যদি ভাল থাকে, তাহলে এই ব্যবসাটি আপনার জন্য পারফেক্ট। আপনি আপনার ফেসবুক পেজের মাধ্যমে এবং গ্রুপের মাধ্যমে কোন রকম কমিশন ছাড়াই খাবার বিক্রি করতে পারবেন। এছাড়া অনেকগুলো ফুড ডেলিভারি আছে যাদের মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আপনার খাবার বিক্রি করতে পারব। এতে করে আপনার ব্যবসা টা অনেক সহজ হবে।

২। ফ্রিল্যান্সিং করে অনলাইনে ইনকাম

আপনার জন্য সবচেয়ে পারফেক্ট  ব্যবসা হবে ফ্রিল্যান্সিং করে অনলাইনে ইনকাম করা। ফ্রিল্যান্সিং হল মুক্ত পেশা। যা আপনি ঘরে বসেই অনলাইনে করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে কিছু স্ক্রিল জানতে হবে। প্রোগ্রামিং ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট ডিজিটাল মার্কেটিং এসইও কনটেন্ট রাইটার গ্রাফিক ডিজাইন ভিডিও এডিটর ইত্যাদি। উল্লেখযোগ্য ফ্রিল্যান্সিং শেখার জন্য কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে।

fiverr.com  

Upwork freelancer.com 

envato.com guru.com

99designs.com

peopleperhour.com

 এসব ফ্রিল্যান্সিং সাইটের মধ্যে অধিকাংশ সাইটে যাদের কাজে প্রয়োজন হয়, তারা পোস্ট করে এবং আপনি সেখানে বিট করে। অর্থাৎ আপনি কত টাকা ও কত কত সময়ের মধ্যে কাজটি করে দিতে পারবেন তা কমেন্ট করে জানাতে পারেন। কিছু সাইট রয়েছে যেগুলোতে আপনি আপনার কাজের পোষ্ট দিয়ে রাখবেন ক্লায়েন্টের যদি কোন কাজে প্রয়োজন হয় তবে আপনাকে মেসেজ করে কাজ অর্ডার করবে।.

৩। কুটির শিল্প 

এই ব্যবসার মধ্যে ঘরোয়াভাবে রয়েছে কুটির মানে ঘর আর ঘরের মধ্যে যে শিল্প সেটাই কুটির শিল্প কুটির শিল্পের ধারক এবং বাহক নারীরা অতএব আপনি চাইলে ঘরে বসে ব্যবসা করতে পারেন।

৪। ব্লগিং

 ইন্টারনেট জগতে সবচেয়ে সহজতর কাজ হচ্ছে ব্লগিং।  ব্লগিং এর প্রতি যদি আপনার আইডিয়া ভালো থাকে তাহলে আপনি নির্দ্বিধায় করতে পারেন। সেটা হতে পারে প্রযুক্তি ব্রহ্মন রেসিপি লাইফস্টাইল খেলাধুলা ইত্যাদি। এতে করে আপনি টাকা আয় করতে পারবেন। ব্লগ থেকে আয় করার পাঁচটি সহজ উপায় এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় অর্থাৎ বিভিন্ন ই-কমার্স সাইটের পণ্যের এফিলিয়েট করে টাকা আয় করতে পারেন।

 অর্থাৎ, আপনি যদি এফিলিয়েট মার্কেটিং অ্যাকাউন্ট খোলেন তারপর আপনার ওয়েবসাইটে তাদের পণ্য বিক্রি করেন তাহলে এই পণ্যের একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ অংশ আপনাকে কমিশন হিসেবে দেওয়া হবে। গুগল এডসেন্স কিংবা অন্য কোনো বিজ্ঞাপন সংস্থার মাধ্যমে বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে আয় করতে পারেন। রিভিউ স্পন্সর লিখে টাকা আয় করতে পারেন।

৫।ফ্যাশন ডিজাইনিং

ফ্যাশন ডিজাইনিং এর মাধ্যমে আপনি ইনকাম করতে পারবেন।যতদিন মানুষ থাকবে জামাকাপড়ের চাহিদাও থাকবে।আমাদের কাপড়ের চাহিদা মেটাচ্ছে গার্মেন্টসগুলো। দিন যতো যাচ্ছে ততো মানুষের রুচির অনেক পরিবর্তন হচ্ছে। 

পরিবেশের উপর ভিত্তি করে মানুষের পোশাকের রয়েছে ভিন্ন ভিন্ন চাহিদা।আর এই চাহিদাকে পূরণ করে ফ্যাশন ডিজাইন।

যদি আপনার ফ্যাশন ডিজাইন এর উপর অভিজ্ঞতা থাকে তাহলে তো কথাই নেই।

আর যদি না থাকে তাহলে আপনি অনলাইনে কিংবা বিভিন্ন কোর্সের মাধ্যমে প্রফেশনাল ফ্যাশন ডিজাইনার হতে পারবেন। সুতরাং ফ্যাশন ডিজাইন হতে পারে আপনার আয়ের প্রধান মাধ্যম।

৬।বুটিক হাউজ

পোশাকের চাহিদা আছে থাকবে যুগ যুগ ধরে। বুটিক পেশাটা হচ্ছে সৃজনশীল পেশা। বুটিক হাউসের মাধ্যমে আপনি সৃজনশীল পেশায় অন্তর্ভুক্ত হতে পারেন।

 ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা দিয়ে শুরু করে দিতে পারেন। এই বুটিকের ওপর ট্রেনিং নেওয়ার জন্য বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

 নিম্নে উল্লেখ করা হলোঃ

 বাংলাদেশ মহিলা সমিতি

 বিসিক

 ঘরকন্যা

 প্রতিবেশী ট্রেনিং সেন্টার

৭। অনলাইন শিক্ষকতা

আপনার যদি শিক্ষার বিষয়ে যদি কোন অভিজ্ঞতা থাকে তাহলে আপনি অনলাইনে এই পেশাটা বেছে নিতে পারেন।

উদাহরণ হিসেবে ধরে নিতে পারেন। আপনার প্রাথমিক যে বিষয়ে জ্ঞান আছে।

 সেই বিষয়ে আপনি অনলাইনে মানুষের মাঝে প্রচার করতে পারেন। 

সাধারণত এই সময় দেখা যায় বাংলা,ইংরেজি , এবং গণিতের, প্রতি মানুষের আগ্রহ বেশ।

 তো আপনি যে বিষয়ে বেশি জানাশোনা আছে, সেই বিষয় বেছে নিতে পারেন। মানুষের মাঝে আপনি তা প্রচার করতে পারেন।

৮। সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার

 সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার এর উপর যদি আপনার ভালো জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা থাকে তাহলে আপনি এই ব্যবসাটা শুরু করতে পারেন। সোশ্যাল মিডিয়ার কার্যকলাপ সম্পর্কে ভালো রকম  ধারণা আর কোন ব্যবসার হয়ে পোস্ট কমেন্ট মেসেজ ইত্যাদি করতে পারেন। তাহলে এই ব্যবসাটা আপনার জন্য পারফেক্ট।

৯। ফ্রম ফিলিন ও ডেটা  এন্ট্রি

 মেয়েদের জন্য উপযুক্ত কাজ হল ফ্রম ফিলিন ও ডেটা এন্ট্রি। 

আপনাকে শুধু ফরম পূরণ করতে হবে এবং সেটা সঠিকভাবে পূরণ হয়েছে কিনা তা দেখতে হবে। 

তাহলেই আপনার সেই কাছ থেকে ইনকাম সোর্স বের হবে। মেয়েদের জন্য ঘরে বসে এই ব্যবসা সবচেয়ে উপযুক্ত।  

১০। হাঁস মুরগির ব্যবসা

  অনেক সময় দেখা যায় মেয়েরা এই ব্যবসা করে লাভবান হচ্ছে। অল্প পুজিতে এই ব্যবসা শুরু করা যায়। 

আপনি আপনার বাড়ির আঙ্গিনায় যদি প্রতীত জায়গা থাকে তাহলে সে জায়গায়। 

আলাদা ঘর তৈরি করে, আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন। 

 হাঁস মুরগির ব্যবসা করতে তেমন কোনো ঝামেলা বা বড় ধরনের কোন সমস্যা থাকেনা।

 তাই আপনি নির্দ্বিধায় এই ব্যবসাটা করতে পারেন।

 শেষ কথাঃ

 মানুষের পরিচয় হয় তার কর্মে। আপনি আপনার কর্মকে ঠিক করুন। তাহলে আপনি সামনে এগিয়ে যেতে পারবেন। আপনি এখানে মহিলাদের জন্য ঘরে বসে ব্যবসা করার ১০টি ব্যবসার আইডিয়া পাবেন। আর ব্যবসা হচ্ছে আপনার নিজের ইচ্ছামত। আপনি যেভাবে গড়ে তুলবেন ঠিক সেভাবেই ব্যবসা গড়ে উঠ। সব কাজই মনোযোগ সহকারে যদি করেন,তাহলে আপনি অবশ্যই সেটার সফলতা পাবেন। আশা করি উপরোক্ত ব্যবসার আইডিয়া  গুলি মনোযোগ সহকারে পড়বেন।   আর আইডিয়া অনুযায়ী কাজ করবেন অবশ্যই সফলতা পাবেন।

আরো পড়ুনঃ 

tech-007

Leave a Reply

Your email address will not be published.